এবার এশিয়ায়র মধ্যে সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি হবে বাংলাদেশের

চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরে এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে মোট দেশজ উ ্পদনে (জিডিপি)বাংলাদেশই সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি হতে পারে।

এবার এশিয়ায়র মধ্যে সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি হবে বাংলাদেশের
ছবিসূত্র : ইন্টারনেট

এই প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশ হবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে এশীয় বাংলাদেশ(এডিবি)।  বিশ্বব্যাংক থেকে প্রাপ্ত পূর্বাভাস মতে মোট দেশজ উৎপাদনের জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জনকারী পাঁচ দেশের একটি হবে বাংলাদেশমোট দেশজ উৎপাদনের সংস্থাটি বলেছে, চলতি অর্থবছরে কেবল বাংলাদেশই ৮ শতাংশের ঘরে প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে।
এ দেশে শিল্প, কৃষি ও প্রবাসী আয়ে শক্তিশালী প্রবৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে, যা প্রবৃদ্ধি অর্জনে সহায়ক হবে।গতকাল বুধবার প্রকাশিত ২০১৯ সালের এডিবি ডেভেলপমেন্ট আউটলুক আপডেটে এ পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। ডেভেলপমেন্ট আউটলুক প্রকাশ উপলক্ষে ঢাকার শেরেবাংলা নগরে এডিবির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে আরও বলা হয়, অন্যান্য দেশের পূর্বাভাসে প্রবৃদ্ধি কমানো হলেও বাংলাদেশের জন্য তা করা হয়নি।
এডিবির আউটলুক অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশ ছাড়া মাত্র দুটি দেশ ৭ বা এর বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে পারে। এর মধ্যে ভারত ৭ দশমিক ২ এবং তাজিকিস্তান ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে পারে। এ ছাড়া ৬ শতাংশের বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে পারে মোট ১০ টি দেশ। দেশগুলো হলো চীন, মঙ্গলিয়া,উজবেকিস্তান,ভূটান, নেপাল, মালদ্বীপ,কম্বোডিয়া,লাওস,মিয়ানমার ও ফিলিপাইন।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশর এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ বলেন, বৈশি^ক প্রবৃদ্ধিতে তুলনামূলক দুর্বল অবস্থা থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশের বাণিজ্য বৃদ্ধির ধারা অব্যাহত থাকতে পারে। আগের চেয়ে বাড়তে পারে রপ্তানি ও প্রবাসী আয়। এ ছাড়া সরকারি বিনিয়োগ বৃদ্ধি এবং বড় প্রকল্প বাস্তবায়নের অগ্রগতির ফলে অর্থনীতিতে উদ্দীপনা অব্যাহত থাকবে।
তাঁর মতে, বাংলাদেশের সামনে মধ্যে ও দীর্ঘ মেয়াদে প্রবৃদ্ধি টেকসই করতে কিছু চ্যালেন্জ আছে। এসব চ্যালেন্জ মোকাবেলায় শিল্পের সম্প্রসারণ,রপ্তানি বহুমুখীকরণ, গ্রাম ও শহর উন্নয়নে বৈষম্য কমানোর পাশাপাশি আর্থিক ব্যবস্থাপনা শক্তিশালী করা দরকার
সংবাদ সম্মেলনে এডিবির আউটলুকের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন সংস্থাটির ঢাকা কার্যালয়ের জ্যেষ্ঠ অর্থনীতিবিদ সুন চ্যান হং। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট ও চীনের বাণিজ্য বিরোধের কারণে বাংলাদেশের রপ্তানিতে তেজি ভাব থাকতে পারে।
এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশকে অবৈধভাবে পরিচালিত ক্যাসিনো বন্ধ করাসহ বাংলাদেশে চলমান দুর্নীতিবিরোধী অভিযানকে কীভাবে দেখেনÑএমন প্রশ্ন করা হলে সরাসরি উত্তর দেননি তিনি। বাংলাদেশের জন্য সুশাসন জোরদার করা জরুরি।

Leave a Reply

avatar
1000
  Subscribe  
Notify of
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com