ইউনিস খানকে ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড

0 ৪৬

ব্যাটসম্যান ইউনিস খানকে ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। পিসিবির পক্ষ থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে বৃহস্পতিবার। চুক্তি অনুযায়ী ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত এই দায়িত্বে থাকবেন তিনি। এই বছরের শুরুতে জাতীয় দলের সঙ্গে ইংল্যান্ডে গিয়েছিলেন ইউনিস খান। আসন্ন নিউ জিল্যান্ড সফরে এবার পূর্ণ কোচিং স্টাফ হিসেবে দলে যোগ দেবেন তিনি।

ব্যাটিং কোচ হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার পর ইউনিস বলেছেন, ‘লম্বা সময়ের জন্য পাকিস্তান ক্রিকেটের সঙ্গে যোগ দিতে পারব, আমার ভালো লাগছে। এই মৌসুমে আমাকে যখন সুযোগ দেওয়া হয়েছিল, আমি সম্মানিতবোধ করছিলাম এবং সময়টা উপভোগ্য ছিল। নিউজিল্যান্ডের মতো গুরুত্বপূর্ণ সফরে দলের খেলোয়াড়দের সঙ্গে কাজ করতে আমি মুখিয়ে আছি।’

ইংল্যান্ডের মাটিতেও ইউনুসের রেকর্ডটা ভালই, ৯ টেস্টে ৫০-এর ওপরে গড়ে ৮১০ রান করেছেন তিনি, ইংল্যান্ডের নিজের শেষ সফরে করেছিলেন ওভালে ডাবল সেঞ্চুরি। ২০০৭ সালে কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে ইয়র্কশায়ারের হয়ে ভাল একটি মৌসুমও কাটিয়েছিলেন তিনি। ইংলিশ কন্ডিশন নিয়ে তার জ্ঞানটা কাজে লাগাতে চায় পাকিস্তান।

“আমরা সবাই জানি ইংলিশ কন্ডিশনে শুধু দৃঢ় টেকনিক নয়, দারুণ ডিসিপ্লিনও দরকার পড়ে। আর যদি আপনি একবার এসব আয়ত্ত্ব করতে পারেন, তাহলে শুধু ইংল্যান্ড নয়, যে কোনও জায়গাতেই শাসন পারবেন। আমাদের দলে যে মানের ক্রিকেটার আছে, তাতে ভাল ফল বের করার দারুণ সম্ভাবনা আছে, যদি আমরা প্রক্রিয়া ঠিক করতে পারি, সেখানে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই কাজ শুরু করে দিতে পারি”, যোগ করেছেন ইউনুস।

ইউনুসকে আবারও ফিরে পেয়ে আগের সহায়তাই আশা করছেন তার দীর্ঘদিনের সতীর্থ মিসবাহ, যার সঙ্গে একই ম্যাচ দিয়ে টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় বলেছিলেন তিনি, “২০১০ সালে কঠিন পরিস্থিতিতে অধিনায়কত্ব নেওয়ার সময় ইউনুস আমাকে দারুণ সমর্থন দিয়েছিল। পাকিস্তান ক্রিকেটকে সাফল্যের ধারায় ফিরিয়ে আনতে ইংল্যান্ড সফরে সে আবারও একই রকম সহায়তা দেবে বলে বিশ্বাস আছে আমার।”

পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান জানান, অন্তত দুই বছরের জন্য জাতীয় দলের সঙ্গে কাজ করবেন ইউনিস খান। পাকিস্তানের টেস্ট ক্রিকেটের অন্যতম সেরা মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবে পরিচিত এই ডানহাতি। পাঁচ দিনের ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রান ও সেঞ্চুরি করা পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান তিনি। একমাত্র পাকিস্তানি হিসেবে ১০ হাজার টেস্ট রান তার। ২০০০ সালে করাচিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় ইউনিসের। তিন ফরম্যাটে নেতৃত্বও দিয়েছেন তিনি।

0 0 vote
Article Rating
আরও পড়ুন
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x