বড় রেকর্ডের পথে বাংলাদেশ চা উৎপাদনে

মৌলভীবাজার:

বৃষ্টির ক্রমাগত পরশ সিলেট বিভাগজুড়ে। জনজীবনে তা চরম বিরক্তি ছড়ালেও চায়ের জন্য দারুণ আশীর্বাদ। বৃষ্টিধারায় ভিজতে ভিজতে চায়ের সবুজ কুঁড়িগুলো যেন ভালোভাবে ছড়াচ্ছে। আর এই কুঁড়িতেই থাকে সম্ভাবনা আর সাফল্য। মুঠো মুঠো সবুজ কুঁড়িরাই ধরা দেয় চা শিল্পে সম্ভাবনার প্রতীক হয়ে।

চা উৎপাদনে বড় রেকর্ডের পথে বাংলাদেশ
ছবিসূত্র : ইন্টারনেট

আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছরেও অপার সম্ভবনার হাতছানি দিচ্ছে চা বাগান। ফলে এবারও দেশে চা উৎপাদনে বড় রেকর্ড হতে চলেছে। প্রথম, দ্বিতীয়র পর এবার তৃতীয় রেকর্ডের ‍দিকে অগ্রসর হচ্ছে দেশের চা উৎপাদন।

বাংলাদেশ চা বোর্ড (বিটিবি)সূত্র জানিয়েছে, ২০১৮ সালে দেশে চা উৎপাদন হয় লক্ষমাত্রা ছাড়িয়ে ৮২ দশমিক ১৩ মিলিয়ন কেজি। যা দেশের চা উৎপাদনের লক্ষমাত্রা ছিল ৭২ দশমিক ৩ মিলিয়ন কেজি।

এর আগে ২০১৬ সালে ১৬২ বছরের ইতিহাসের সব রেকর্ড ভেঙে দেশে সর্বোচ্চ চা উৎপাদন হয়েছিল ৮৫ দশমিক ০৫ মিলিয়ন কেজি। আবহাওয়া অধিদপ্তর সিলেটের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমেদ চৌধুরী বাংলানিউকে বলেন,চলতি বছরে মোট বৃষ্টিপাত প্রায় ৩ হাজার ৩১৫ মিলিমিটার। এর মধ্যে ফেব্রুয়ারিতে ৪৫ দশমিক ২ মিমি, মার্চে ৪৬ দশমিক ৯মিমি, এপ্রিলে ৩২৬ মিমি, মে মাসে ৬৫৬ দশমিক ৫ মিমি,জুনে ৮০৮ দশমিক ৩ মিমি, জুলাইয়ে ৭১৯ দশমিক ৪ মিমি, ৪০৫ দশমিক ১ মিমি এবং সেপ্টেম্বরে ৩০৮ মিলিমিটার। যদিও জানুয়ারিতে কোনো বৃষ্টিপাত হয়নি। সবমিলে আমাদের বিভাগে বৃষ্টিপাতের দিনের সংখ্যা বেড়ে গেছে। যা চায়ের জন্য অত্যন্ত উপকারী।

Leave a Reply

avatar
1000
  Subscribe  
Notify of
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com