ভারত থেকে আসা পেঁয়াজের অর্ধেকই ছিল পঁচা।

0 ৬৯

ভারত থেকে আসা পেঁয়াজের অর্ধেকই ছিল পঁচা। তার মধ্যে যেগুলোর মান ভালো ছিল, সেগুলোও এখন পঁচতে শুরু করেছে। গেল শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) আমদানি করা পিয়াজগুলো পাঁচ দিন ধরে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় আটকে পড়ে ছিল হিলি বন্দরে। অতিরিক্ত গরমে পিয়াজ পচে নষ্ট হওয়ায় হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারকেরা বিপাকে পড়েছেন। তারা আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন।

ব্যবসায়ীরা জানান, নষ্ট হতে বসাগুলো কেজি প্রতি ৫ থেকে ৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর একটু মান ভালো যেগুলোর, তা বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ২৫ টাকা কেজিতে। এদিকে, আজ হিলি, ভোমরা, বা সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে কোন চালান ঢোকেনি। আর বন্ধ হয়ে আবার পেঁয়াজ রফতানি শুরুর পর বেনাপোল বন্দর দিয়ে কোন চালান আসেনি দেশে।

হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ জানান, ভারতীয় কর্তৃপক্ষ গত ১৮ সেপ্টেম্বর এক সিদ্ধান্তে শুধুমাত্র ১৩ই সেপ্টেম্বর এলসি করা পিয়াজ রপ্তানির অনুমতি দেয়। ফলে শনিবার সীমান্তে আটকে থাকা ১১টি ট্রাকে ২৪৬ টন পিয়াজ হিলি স্থলবন্দর দিয়ে দেশে আমদানি করা হয়। তবে সীমান্তে আটকে থাকা ১০ হাজার টন পিয়াজের অনুমতি দেয়া হয়নি। এ কারণে আজ রোববার হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পিয়াজ আমদানি হয়নি। হারুন উর রশিদ আরো জানান, শনিবার যেসব পিয়াজ এসেছে তার বেশিরভাগই পচে নষ্ট হয়ে গেছে। এতে বন্দরের ব্যবসায়ীদের প্রায় অর্ধ কোটি টাকার লোকসান হয়েছে।

0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x