,
সংবাদ শিরোনাম :
» « দেখিয়ে দাও তুমি কেন এক নম্বর, সাকিবকে রোডস» « অবশেষে ধ্যান ভেঙে গুহা ছাড়লেন মোদি» « যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যে বেইজিংয়ে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী» « বাগেরহাটে বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা, নিহত ৫» « জ্যান্ত কবর দেয়া শিশুকে মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করলো কুকুর» « রাজধানীতে পৃথক অভিযানে অজ্ঞানপার্টির ২৩ সদস্য আটক» « আয়ারল্যান্ডকে উড়িয়ে বাংলাদেশের ফাইনাল ‘প্রস্তুতি’» « ময়মনসিংহ মেডিক্যালের ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি, ফটকে তালা ঝুলিয়ে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ» « দেশের পথে ওবায়দুল কাদের» « প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ১৭ অভিযুক্ত পাওয়া গেলো ছাত্রলীগের কমিটিতে

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি, ফটকে তালা ঝুলিয়ে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ

 

 

বহিরাগত রিকশাচালকের হাতে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজের এম-৫৫ ব্যাচের এক ছাত্রীর শ্লীলতাহানির প্রতিবাদে এবং ক্যাম্পাসে নিরাপত্তা জোরদারের দাবিতে বিক্ষোভ করছেন কলেজের শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার (১৬ মে) সকাল থেকে কলেজ ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়ে এবং কলেজের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে তারা প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করছেন। এ ঘটনার জেরে উত্তেজিত শিক্ষার্থীরা হোস্টেল গেটের দায়িত্বরত রাজা নামে এক কর্মচারীকে মারধর করেছেন। রাজাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

আন্দোলনরত ইন্টার্ন চিকিৎসক রাকিব জানায়, বুধবার (১৫ মে) সন্ধ্যার পর ক্যাম্পাসের মেয়েদের কলেজ হোস্টেলের সামনের সড়কে বহিরাগত এক রিকশাচালক এম-৫৫ ব্যাচের এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি করে। এ ঘটনা হোস্টেল সুপার ডা. নাহিদ রায়হানাকে জানানোর পরেও তিনি কোনও ব্যবস্থা নেননি। ঘটনার প্রতিবাদে এবং ক্যাম্পাসে নিরাপত্তা জোরদারের দাবিতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই ক্লাস বন্ধ রেখে কলেজের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নামেন।

ম-৫৫ ব্যাচের শিক্ষার্থী সৌমিক জানান, কলেজ ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের কোনও নিরাপত্তা নেই। বহিরাগতরা যখন তখন ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে এবং সুযোগ বুঝে নারী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাজে আচরণ করে। আগেও এরকম ঘটনা একাধিকবার ঘটেছে, কিন্তু কর্তৃপক্ষ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। দোষী রিকশাচালককে দ্রুত গ্রেফতার করা না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

একই ব্যাচের এক ছাত্রী জানান, সন্ধ্যার পর হোস্টেল থেকে বের হওয়া যায় না। এই বিষয়গুলো হোস্টেল সুপার ডা. নাহিদা ইয়াসমিনকে জানানো হলেও তিনি কোনও ব্যবস্থা নেননি। অভিযোগ দেওয়ার পর উল্টো হোস্টেল সুপারই ছাত্রীদের বলেন তোমরা কেন রাতে হোস্টেলের বাইরে বের হয়ে যাও। ‘আমাদের নিজেদের ক্যাম্পাসে আমরা যদি বের হতে না পারি তাহলে কীভাবে দীর্ঘদিন ওই কলেজে লেখাপড়া করবো’ এটাই প্রশ্ন ওই শিক্ষার্থীর।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কলেজের অধ্যক্ষ ডা. আনোয়ার হোসেন জানান, বিষয়টির সমাধানে কলেজের শিক্ষক ও আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের নিয়ে সভায় বসেছি। দ্রুত সমাধান হবে বলে জানান তিনি।

ময়মনসিংহ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল-আমীন জানান, কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা তৎপর আছেন। দায়ী বহিরাগত রিকশাচালককে গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান চলছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কলেজে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2FB Auto Publish Powered By : XYZScripts.com