অভিবাসন নয় গ্রীণ কার্ড বন্ধ করতে যাচ্ছেন ট্রাম্প

করোনা ভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে চলা লকডাউনের কারণে বেকার হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের লাখ লাখ মানুষ। এমন অবস্থায় সাময়িকভাবে যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসন বন্ধের ঘোষণা দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবার ট্রাম্প জানালেন, আগামী দুই মাসের জন্য গ্রীণ কার্ড কার্যক্রম বা যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি স্থগিত করতে যাচ্ছেন তিনি।

WASHINGTON, DC – APRIL 20: U.S. President Donald Trump speaks at the daily coronavirus briefing at the White House April 20, 2020 in Washington, DC. Oil prices fell below zero today due to a collapse in energy demand and near full capacity of storage tanks in the U.S., brought on by the COVID-19 pandemic lockdown. (Photo by Alex Wong/Getty Images)

এর আগে সোমবার ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, সকল অভিবাসীদের জন্য বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের অনুমতি। তবে ট্রাম্প তার সেই পরিকল্পনা থেকে সরে এসেছেন।

মঙ্গলবার একটি টুইট বার্তায় ট্রাম্পের পক্ষ থেকে এমনটি বলা হয়। তবে ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্তে অস্থায়ী ভিসা নিয়ে যক্তরাষ্ট্রে যাওয়াদের তেমন কোন ক্ষতি হবে না।

সমালোচকরা বলছেন, করোনা ভাইরাস নিয়ে ট্রাম্প যে অবহেলা করেছেন সেটির সমালোচনা ঢাকতেই তিনি চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসে প্রায় ৪৫ হাজার মানুষ মারা গেছেন।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্র্যাট দলের অভিযোগ, ট্রাম্প প্রশাসন এই করোনা মহামারির মধ্যেও অভিবাসীদের বিরুদ্ধে ধরপাকড় চালাচ্ছে। হোয়াইট হাউজে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বলেছেন, বুধবারের মধ্যে তিনি গ্রীণ কার্ড বন্ধের বিষয়ে নির্বাহি আদেশে স্বাক্ষর করবেন। আর এই নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ আরো দীর্ঘায়িত হতে পারে বলেও আভাস দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে এটি পুরোপুরি মার্কিন অর্থনীতির ওপর নির্ভর করছে বলে জানিয়েছেন ট্রাম্প।