ইরানের বিরুদ্ধে ‘কড়া অবস্থান’ নিয়েছেন সৌদির বাদশাহ

ইরানের বিরুদ্ধে ‘কড়া অবস্থান’ নিয়েছেন সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ। পরমাণু অস্ত্র অর্জন এবং ব্যালিস্টিক মিসাইল কর্মসূচি থেকে বিরত রাখতেই সৌদির এই পদক্ষেপ। সৌদি সরকারের শীর্ষ উপদেষ্টা বোর্ডে বার্ষিক বক্তৃতায় গতকাল বুধবার বাদশাহ আবদুল আজিজ এ আহ্বান জানান।

সৌদি বাদশাহ বলেন, সন্ত্রাসবাদে উৎসাহ, বিভিন্ন দেশে হস্তক্ষেপ এবং আঞ্চলিক প্রকল্পগুলোর মাধ্যমে হুমকি দিয়ে ইরান সাম্প্রদায়িকতাকে উস্কে দিছে।

তিনি বলেন, ইরানের আঞ্চলিক কর্মপরিকল্পনা, অন্য দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ, সন্ত্রাসবাদে মদদ এবং গোষ্ঠীগত বিভাজনে উস্কানির বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে সৌদি। ইরানের বিরুদ্ধে কড়া অবস্থান নিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি যাতে দেশটির ব্যাপক বিধ্বংসী অস্ত্র অর্জন এবং ব্যালিস্টিক মিসাইল কর্মসূচি কঠোর হস্তে মোকাবিলা নিশ্চিত করে।

দেশটিকে পরমাণু অস্ত্র অর্জন এবং ব্যালিস্টিক মিসাইল কর্মসূচি থেকে বিরত রাখতেই এই আহ্বান জানান তিনি।

সৌদি আরব এবং শিয়া অধ্যুষিত ইরানের মধ্যে বেশ কয়েকটি প্রক্সি যুদ্ধ চলছে। এর মধ্যে অন্যতম একটি হলো ইয়েমেনের যুদ্ধ। সেখানে ইয়েমেন সরকারকে সমর্থন দিচ্ছে সৌদি আরব। অপরদিকে সরকারবিরোধী হুতি বিদ্রোহীদের সমর্থন দিয়ে আসছে ইরান। 

ইরানের বিরুদ্ধে কড়া অবস্থান নিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি যাতে দেশটির ব্যাপক বিধ্বংসী অস্ত্র অর্জন এবং ব্যালিস্টিক মিসাইল কর্মসূচি কঠোর হস্তে মোকাবিলা নিশ্চিত করে, যোগ করেন তিনি।

প্রক্সি যুদ্ধ মূলত দুটি দেশের মধ্যে সহিংস লড়াই যাতে কোনো পক্ষ সরাসরি যুক্ত না থেকে তৃতীয় কোনো পক্ষ কে সামনে রেখে যুদ্ধ করে।

এর আগে, ৮৪ বছর বয়সী এই শাসক সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনেও ইরানের ‘সম্প্রসারণবাদের’ নিন্দা জানান। এদিকে সৌদি বাদশাহর সর্বশেষ বক্তৃতার প্রতিক্রিয়ায় এখনো কোনো মন্তব্য করেনি ইরান। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে বাদশাহর দেওয়া বক্তব্যকে ‘ভিত্তিহীন অভিযোগ’ বলে নাকচ করে দেয় তেহরান।

0 0 vote
Article Rating
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x