দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখতে দেশে তুলে দেয়া হয়েছে লকডাউন।

করোনায় অচল পুরো পৃথিবী। যার হাত থেকে রক্ষা পায়নি বাংলাদেশও। কিন্তু দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখতে দেশে তুলে দেয়া হয়েছে লকডাউন। তাই মানুষ সবখানে যাতায়াত করছে কোনো বারণ ছাড়াই। কিন্তু এই করোনা সময়ে নিজেকে বন্দি রাখার থেকে বুদ্ধিমানের কাজ আর হতে পারে না। নিজেকে বাসায় বন্দি রাখাই শ্রেয়। তারপরও জরুরি প্রয়োজনে কোথাও যেতে হতে পারে। দেখে নিন জায়গাটি আজ সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) খোলা আছে কি-না।

অর্ধ দিবস বন্ধ থাকবে যেসব এলাকা

আগারগাঁও, তালতলা, শেরেবাংলা নগর, শেওড়া পাড়া, কাজীপাড়া, পল্লবী, মিরপুর-১০, মিরপুর-১১, মিরপুর-১২, মিরপুর-১৩, মিরপুর-১৪, ইব্রাহীমপুর, কচুক্ষেত, কাফরুল, মহাখালী, নিউ ডিওএসএইচ, ওল্ড ডিওএসএইচ, কাকলী, তেজগাঁও ওল্ড এয়ারপোর্ট এরিয়া, তেজগাঁও ইন্ডাস্ট্রিয়াল এরিয়া, ক্যান্টনমেন্ট, গুলশান-১, ২, বনানী, মহাখালী কমার্শিয়াল এরিয়া, নাখালপাড়া, মহাখালী ইন্টার সিটি বাস টার্মিনাল এরিয়া, রামপুরা, বনশ্রী, খিলগাঁও, গোড়ান, মালিবাগের একাংশ, বাসাবো, ধলপুর, সায়েদাবাদ, মাদারটেক, মুগদা, কমলাপুরের একাংশ, যাত্রাবাড়ী একাংশ, শনির আখড়া, দনিয়া, রায়েরবাগ, সানারপাড়।

অর্ধ দিবস বন্ধ থাকবে যেসব মার্কেট

বিসিএস কম্পিউটার সিটি (আইডিবি), পল্লবী সুপার মার্কেট, মিরপুর বেনারসী পল্লী, ইব্রাহীমপুর বাজার, ইউএই মৈত্রী কমপ্লেক্স, বনানী সুপার মার্কেট, ডিসিসি মার্কেট গুলশান-১ এবং ২, গুলশান পিংক সিটি, মোল্লা টাওয়ার, আল-আমিন সুপার মার্কেট, রামপুরা সুপার মার্কেট, মালিবাগ সুপার মার্কেট, তালতলা সিটি কর্পোরেশন মার্কেট, কমলাপুর স্টেডিয়াম মার্কেট, গোরান বাজার, আবেদিন টাওয়ার, ঢাকা শপিং সেন্টার, আয়েশা মোশারফ শপিং কমপ্লেক্স, মিতালী অ্যান্ড ফ্রেন্ড সুপার মার্কেট।

Comments on 'দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখতে দেশে তুলে দেয়া হয়েছে লকডাউন।' (0)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *