পোল্যান্ডে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতির হার শূন্য শতাংশ!

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে রবিবার পোল্যান্ডে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পোলিং স্টেশনগুলো বন্ধ থাকলেও ভোট আনুষ্ঠানিকভাবে বন্ধ হয়নি। ফলে নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতির হার ছিল শূন্য শতাংশ। কয়েক সপ্তাহ ধরে আইনি জটিলতা চলছিল যে, এই নির্বাচন হবে নাকি বাতিল হবে। আইনি ম্যারপ্যাচেই শেষ পর্যন্ত নির্বাচন বন্ধ করা না হলেও ভোটের বুথ বন্ধ থাকে করোনাভাইরাসের কারণে।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে পোল্যান্ডের শাসক দল ল’ অ্যান্ড জাস্টিস পার্টি’র (পিএস) বিরুদ্ধে গণতান্ত্রিক চর্চা হ্রাস করার অভিযোগ রয়েছে। করোনা সংকটের সময়ও তারা নির্বাচন আয়োজনের চেষ্টা করে।

এদিকে, এই নির্বাচনের পূর্বাভাসে বলা হচ্ছিল যে, পিএস দলের মিত্র প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেজ দুদা অনায়াসে জিতবেন। বিরোধীদের অভিযোগ, প্রথম দফার নির্বাচনে সহজে জিততে সরকার এই সংকটের সময় জোরাজুরি করেছে। তবে বিশ্লেষকরা মনে করছেন, বিরোধীরা করোনাভাইরাস নিয়ে উদ্বেগের কারণে ভোট স্থগিত করতে চান, এটি যেমন সত্য। তেমনি এটি সত্য যে, প্রেসিডেন্ট দুদার হারার সম্ভাবনাও বেশি ভোট পেছালে। কেননা, করোনাভাইরাসের কারণে অর্থনীতির অবস্থা আরও শোচনীয় হলে সাধারণ মানুষ সরকারের ওপর অনেক ক্ষুব্ধ থাকবে।

Comments on 'পোল্যান্ডে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতির হার শূন্য শতাংশ!' (0)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *