লোকাল ও মেইল ট্রেন চলাচল বন্ধ

রেলের সব লোকাল ও মেইল ট্রেনের চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। এখনো চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে আন্তঃনগর ট্রেনের। তবে আগামী ২৬ মার্চ থেকে আন্তঃনগর ট্রেন বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে বলে রেলওয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার সকাল থেকে এ ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেয়া হলো। এর আগে সোমবার সচিবালয়ে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম রেল চলাচল বন্ধ করে দেয়ার বিষয়টি জানিয়েছিলেন।

করোনাভাইরাসের প্রভাবে ধুকছে পুরো বিশ্ব। সাথে বাংলাদেশও। করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে আগামী ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের সরকারি-বেসরকারি সবধরণের প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ফলে ১০ দিনের বন্ধ পাওয়ায় বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে মানুষ। গণপরিবহণে ঈদে নাড়িরটানে বাড়ি ফেরা মানুষের মতো ভিড় দেখা দিয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে করোনাভাইরাসের প্রতিরোধ ঠেকোতে বন্ধ করে দেয়া হলো লোকাল ও মেইল ট্রেনের চলাচল। ২৬ মার্চের পর থেকে বন্ধ করে দেয়া হতে পারে আন্তঃনগর রেল চলাচলও।

রেলওয়ের মহাপরিচালক মো: শামছুজ্জামান জানান, ‘বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও করোনা ভাইরাস প্রাণঘাতি হয়ে উঠেছে। আমরা ধীরে ধীরে সবগুলো ট্রেন বন্ধ করে দেবো। প্রাথমিকভাবে সব লোকাল মেইল বন্ধের সিদ্ধান্ত হয়েছে। আজ থেকে সব লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকবে। ভাইরাসটি যাতে সব অঞ্চলে ছড়িয়ে না পড়তে পারে সে কারণে আমরা ট্রেন বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করছি।’

তিনি আরো জানান, আগামী ২৬ মার্চ থেকে সাধারণ সরকারি ছুটি শুরু হওয়ায় ওই দিন থেকে ট্রেনের যাত্রী সংখ্যা বেড়েছে।এদিকে রেলওয়ে মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফুল আলম জানান, করোনার কারণে আগামী ২৬ মার্চ থেকে দেশের সব ট্রেনের টিকিট বিকি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, এ বিষয়ে এখনও অফিশিয়াল আদেশ বের না হলেও কিছুক্ষণের মধ্যে বের হবে। রেলের পরিচালক (ট্রাফিক) এর বরাত দিয়েছে জনসংযোগ কর্মকর্তা এ কথা জানিয়েছেন।

0 0 vote
Article Rating
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x