শাহবাগ মোড় অবরোধ করেছেন মেডিক্যাল এবং ডেন্টাল শিক্ষার্থীরা।

রাজধানীর শাহবাগ মোড় অবরোধ করেছেন সাধারণ মেডিক্যাল এবং ডেন্টাল শিক্ষার্থীরা। তিন দফা দাবিতে রোববার সকাল ১০টায় সেখানে অবস্থান নেন তারা।অবরোধের কারণে পল্টন থেকে কাঁটাবন ও শাহবাগ থেকে বাংলামোটর অভিমুখী মূল সড়কে যান চলাচল পুরোপুরি বন্ধ আছে।

শিক্ষার্থীদের তিন দফা দাবি হলো- করোনা মহামারিতে প্রফের (পরীক্ষা) বিকল্প দিতে হবে; অনতিবিলম্বে সেশনজট দূর করতে পরবর্তী ধাপের অনলাইন ক্লাস শুরু করতে হবে এবং পরীক্ষা ও ক্লাস সংক্রান্ত সব আদেশের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে মেডিক্যাল শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য ঝুঁকির কথা বিবেচনা করতে হবে।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, প্রাইভেট মেডিকেল কলেজগুলোর ক্লাস ও হোস্টেল বন্ধ থাকলেও অতিরিক্ত বেতন পরিশোধের জন্য কর্তৃপক্ষ চাপ প্রয়োগ করছে। দুঃখজনক বিষয় হলো তাদের এসব সমস্যা নিয়ে কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। এসব বিষয়ে তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদের ডিনের সঙ্গেও কথা চায়।

এদিকে, করোনা মহামারির কারণে মেডিকেল ও ডেন্টাল শিক্ষার্থীদের ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। এতে করে অনিশ্চয়তায় পড়েছেন এসব শিক্ষার্থীরা। তারা সেশনজটের আশঙ্কা করছেন। এতে আশপাশের সড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। কাঁটাবন ও শাহবাগ এবং বাংলামোটর অভিমুখী সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

শিক্ষার্থীরা জানান, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা করে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এছাড়া করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আশঙ্কা করা হচ্ছে। এই অবস্থায় মেডিকেলের প্রফেশনাল পরীক্ষা ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে বলে ঘোষণা করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, পরীক্ষা দেওয়ার আগে আবাসিক হলগুলোতে একমাস অবস্থান করার বাধ্যবাধকতাও দেওয়া হয়েছে।

তারা বলেন, প্রতিটি হলে একটি রুমে তিন থেকে চারজন করে শিক্ষার্থী থাকেন। এই অবস্থায় তারা কেউ আক্রান্ত হলে এর দায়ভার কর্তৃপক্ষ নেবে না। কেউ আক্রান্ত হলে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না। ফলে শিক্ষার্থীরা ছয় মাস পিছিয়ে পড়বে। তারা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরীক্ষা গ্রহণের জন্য দাবি জানান।

পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে সকালে সাধারণ মেডিক্যাল এবং ডেন্টালের প্রায় চার শ’ শিক্ষার্থী শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নেন।শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা ঘরে ফিরে যাবেন না।

Comments on 'শাহবাগ মোড় অবরোধ করেছেন মেডিক্যাল এবং ডেন্টাল শিক্ষার্থীরা।' (0)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *