ঢাকা - কোয়ালিটি টিভি বাংলা - QTV

টাঙ্গাইলের ভাল্লুককান্দী এলাকায় সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা ও তার চার বছরের শিশুকন্যাকে গলা কেটে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার দিবাগত রাত বারটার দিকে টাঙ্গাইলের পৌর এলাকার (৯নং ওয়ার্ড) ভাল্লুককান্দী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় দুবৃর্ত্তরা আলমারীর ডয়ার থেকে আট লাখ টাকা নিয়ে গেছে।

গভীর রাতে অন্তঃসত্ত্বা মা ও তার শিশু সন্তানকে কুপিয়ে হত্যা

ছবিসূত্র : ইন্টারনেট

টাঙ্গাইল মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মোশাররফ হোসেন জানান, শনিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে দুর্বৃত্তরা তাদের বাড়িতে ঢুকে ফোন ফ্যাক্স ব্যবসায়ী আলামিনের স্ত্রী ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা লাকি বেগম (২২) ও তার শিশু কন্যা আলিফাকে (৪) কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করে। এ সময় নিহতের স্বামী আলামিন বাড়িতে ছিলেন না।

আলামিন বাড়ির কাছেই আসাদ মার্কেটে ফোন ফ্যাক্সের দোকান করে। দোকান থেকে রাতে বাড়ি ফিরেই গেটের সামনেই মেয়ে আলিফার গলাকাটা লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করে। পাশেই তার স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা লাকী বেগমের নাড়িভুড়ি বের হওয়া কুপানো লাশ পড়ে থাকতে দেখে। পরে টাঙ্গাইল মডেল থানা পুলিশ গিয়ে তাদের লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেন।এ ঘটনায় এখনো কেউ গ্রেফতার হয়নি। মামলা প্রক্রিয়াধীন, পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারনা করছে, পূর্ব পরিচিত কেউ আলামিনের ফোন ফ্যাক্সে ব্যবসার আট লাখ টাকা নিতেই এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। পুলিশ পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছে বলে জানিয়েছেন ওসি মোশারাফ হোসেন।